1. admin@apurbanews24.com : admin :
  2. Muhammadsaifu2018@gmail.com : Saiful Islam : Saiful Islam
ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অজ্ঞান রোগীকে পিটিয়ে চিকিৎসার সেবা! - অপূর্ব নিউজ ২৪ -ApurbaNews24
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন

ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অজ্ঞান রোগীকে পিটিয়ে চিকিৎসার সেবা!

ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধিঃ
  • Update Time : রবিবার, ২২ আগস্ট, ২০২১
  • ৬৪ Time View

ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধিঃ

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীরকে স্বাস্থ্য সেবার নামে অজ্ঞান রোগীকে পিটানোর অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ২০আগষ্ট শুক্রবার রাত আনুমানিক দেড়টায়। ঘটনার শিকার হয়েছেন পৌর এলাকার সাফুয়া গ্রামের আঃ রশিদ (৬০) নামের এক বৃদ্ধা।

মৌখিক অভিযেগের ভিত্তিতে সরেজমিনে গিয়ে ভুক্তভোগির সাথে কথা বলে যানা যায়, গত শুক্রবার গভীর রাতে আঃ রশিদ (৬০) নামের এক বৃদ্ধা হঠাৎ করে অজ্ঞান হয়ে যায়। তার অবস্থার খারাপ দেখে পরিবারের লোকজন রাত দেড়টায় অজ্ঞান অবস্থায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। এসময় ডিউটিতে কোন ডাক্তার না থাকায় ডাক্তারের সহকারী (স্যাকমো) অলি আহমদ রোগীর দু‘গালে থাপ্পড় ও মাথায় কিল- ঘুষি দিয়ে এত রাতে বিরক্ত করার জন্য অশোভন আচরন করতে থাকে বলে অভিযোগ করেন রোগী আঃ রশিদের স্ত্রী জাহানারা বেগম।

তিনি আরোও জানান, প্রথমে আমরা হাসপাতাল গেইটে এসে দেখতে পাই গেইট বন্ধ অতঃপর আমাদের বাড়ির সাংবাদিক জাকির হোসেন সৈকত কে জানালে সে, হাসপাতালের ইউএইচওকে ফোন করে বলার পর গেইট খুঁলে দেয়। রোগীর জন্য হুইল চেয়ার চাইলে না দিতে স্বীকৃতি জানান। পরে আমরা রাতে ডিউটিতে থাকা নাইট গার্ডের সহযোগীতা চাইলে সহযোগীতা না করে চলে যায়। আমরা ইমারজেন্সী কক্ষে নিয়ে শোয়ানোর পর স্যাকমো অলি আহমদ ক্ষিপ্ত হয়ে এসে রোগীর দু‘গালে ও মাথায় কিল ঘুষি দিয়ে বলে, এত রাতে বড় স্যারকে ফোন দিলি কেন? জাহানারা আরো বলে, আমরা নিরুপায় হয়ে হাসপাতালে আসলাম অথচ আমাদের আমাদের সামনেই রোগীকে এভাবে প্রহার করলো হলো।

এ বিষয়ে সংবাদকর্মী জাকির হোসেন সৈকত জানায়, আমি রোগীর পক্ষে রাতে ১০/১৫ বার হাসপাতালের ইমারজেন্সীতে ফোন দিলেও ফোনটি রিসিভ হয়নি। পরে বাধ্য হয়ে চাঁদপুরে অবস্থানকারী ইউএইচও আশরাফ আহাম্মেদ চৌধুরীকে ফোন করে জানোর পর রোগীকে বিতরে প্রবেশ করতে দেয়।

এ বিষয়ে সাংবাদিকরা হাসপাতালের ইউএইচও এর নিকট জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের সামনে রোগীর স্ত্রী জাহানারা বেগম ও স্যাকমো অলি আহমাদকে জিজ্ঞাসা বাদ করেলে অলি রোগীকে কিল- ঘুষি দেওয়ার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এবং তার ভুল হয়েছে বলে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

এ বিষয়ে হাসপাতালের ইউএইচও মোহাম্মদ আশ্রাফ আহমেদ চৌধুরী বলেন, ঘটনার বিষয় অবহিত হলাম। তারপরেও আমি সিসিটিভির ফুঁটেজ দেখে সত্যতার প্রমাণ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো।

তিনি আরোও জানান, আমি ফোন দিয়েছি ইমার্জেন্সীর দায়িত্বে থাকা ডাক্তার মাসুদকে আমিতো স্যাকমো অলিকে ফোন দেইনি।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিউলী হরিকে তাৎক্ষনিক বিষয়টি জানানো হযেছে, তিনি বলেন বিষয়টি খুবই দুঃখ জনক। আমি এ বিষয়ে ইউএইচও কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলবো।
চাঁদপুর সিভিল সার্জন ডা. সাখাওয়াত হোসেনের মুঠো ফোনে বক্তব্য চাইলে তিনি জানান, আমি এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে সত্যতা যাচাই করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 বিঃ দ্রঃঅপূর্ব নিউজ ২৪.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।Apurbanews24
Theme Customized BY WooHostBD