1. admin@apurbanews24.com : admin :
কঠোর লকডাউনেও শিল্পকারখানা চালু রাখতে চান উদ্যোক্তারা - অপূর্ব নিউজ ২৪
সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
গাজার আল জাজিরা কার্যালয়ে ইসরায়েলের হামলা ফরিদগঞ্জে ঈদের দিনে আনন্দ করতেই ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত পেকুয়া উপজেলা সর্বস্তরের জনগণকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেনঃ মোহাম্মদ জাকারিয়া চট্টগ্রামে মাঠের বদলে মসজিদে ঈদ জামাতের প্রস্তুতি পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে বিরোধীদলীয় নেতার শুভেচ্ছা বায়তুল মোকাররমে ঈদের ৫টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে কাল আওয়ামী লীগ থেকে শিখুন, জনগণের পাশে থাকুন- বিএনপিসহ সব দলকে তথ্যমন্ত্রী করোনাকালীন রাজনৈতিক ব্লেম গেম থেকে বিরত থাকা সবার দায়িত্ব ও কর্তব্য : ওবায়দুল কাদের আগামীকাল পবিত্র ঈদুল ফিতর সবাইকে বর্তমান অবস্থানে থেকেই স্বাস্থ্য নির্দেশিকা মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

কঠোর লকডাউনেও শিল্পকারখানা চালু রাখতে চান উদ্যোক্তারা

অপূর্ব নিউজ ডেস্ক
  • Update Time : রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১
  • ২২ Time View
সংগৃহীত ছবি

আসন্ন লকডাউনে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে কারখানা চালু রাখতে চান বস্ত্র ও পোশাক খাতের উদ্যোক্তারা। রোববার দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে শিল্প নেতারা বলেন, উৎপাদন বন্ধ হলে ঈদে বেতন ভাতা দিতে অসহায় হয়ে পড়বেন মালিকরা। তাদের আশঙ্কা, পোশাক খাত লকডাউনের আওতায় থাকলে বহুমূখী সংকট সৃষ্টি হবে।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ১৪ এপ্রিল থেকে সর্বাত্মক লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। এবার জরুরী সেবা ছাড়া সব অফিস আদালত, কারখানা বন্ধ থাকবে।

কারখানা বন্ধ করে দেয়ার খবরে উদ্বিগ্ন বস্ত্র ও পোশাক খাতের উদ্যোক্তারা। উৎপাদন চালু রাখার দাবিতে রোববার দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে যৌথ সংবাদ সম্মেলন করে বিজিএমইএ, বিকেএমইএ, বিটিএমএসহ শীর্ষ সংগঠনগুলো।

বিজিএমইএ এর নবনির্বাচিত সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, স্বাস্থবিধি কঠোরভাবে মেনে চলায় বস্ত্র ও পোশাক খাতের কারখানা কর্মীদের মধ্যে করোনা সংক্রমণ অনেক কম। তবে কারখানা বন্ধ হলে অনেক শ্রমিক গ্রামে ফিরে যাবে। এতে সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়বে বলেও আশঙ্কা উদ্যোক্তাদের।

ইএবি সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী বলেন, করোনার কারণে ক্রয়াদেশ কমে যাওয়া, স্থগিত হওয়া, পোশাকের দাম না পাওয়াসহ বহুমুখী চাপে পোশাক খাত। কারখানা বন্ধ হলে এসব সমস্যা প্রকট হবে। অনিশ্চিত হবে শ্রমিকদের ভবিষ্যতও।

বিজিএমইএ এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুস সালাম বলেন, কারখানা বন্ধ হলে বিপর্যয় দেখা দেবে সাপ্লাই চেইনে। বন্দরে কনটেইনার জটসহ অনেক জটিলতা তৈরি হবে।
নেতারা জানান, পোশাক খাতকে লকডাউনের আওতায় বাইরে রাখতে সরকারের সঙ্গে আলোচনা চলছে। এ ব্যাপারে জনমত তৈরি হলে সরকার ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেবে বলেও মন্তব্য করেন তারা।

এদিকে, কঠোর লকডাউনে কারখানা বন্ধ করলে ক্রয়াদেশ হারাবে বাংলাদেশ। এছাড়া শ্রমিকেরা ছুটিতে গ্রামের বাড়ি গেলে সংক্রমণ আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা কারখানা মালিকদের। এমন পরিস্থিতিতে কারখানা খোলা রাখার বিষয়টি সরকার সক্রিয়ভাবে চিন্তা-ভাবনা করছে বলে জানিয়েছেন বিকেএমইএর সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম।

রোববার বেলা তিনটায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের সভাপতিত্বে একটি বৈঠকে এ আশ্বাস দেয়া হয় বলে জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 বিঃ দ্রঃঅপূর্ব নিউজ ২৪.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।Apurbanews24
Theme Customized BY WooHostBD