1. admin@apurbanews24.com : admin :
  2. Muhammadsaifu2018@gmail.com : Saiful Islam : Saiful Islam
ইসলামপুরে প্রশাসনের নাম ভাঙ্গিয়ে জমজমাট বালু ব্যাবসা - অপূর্ব নিউজ ২৪
বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৯:০৬ অপরাহ্ন

ইসলামপুরে প্রশাসনের নাম ভাঙ্গিয়ে জমজমাট বালু ব্যাবসা

শেখ ফজলে রাব্বি(জামালপুর প্রতিনিধি)
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৯ মার্চ, ২০২১
  • ৬৫ Time View

জামালপুর ইসলামপুরে প্রশাসনের চোখ ফাকি দিয়েবালু দস্যুরা দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। অন্য দিকে উপজেলা প্রশাসন প্রতিনিয়ত বিভিন্ন জায়গায় মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জেল-জরিমানা করে আসছে। তাতেও কমছে না বালু উত্তেলন, প্রশাসনের সাথে চুর পুলিশের খেলা শুরু করেছে ভূমি দস্যুরা। প্রভাবশালীরা জানায়, প্রশাসনকে ম্যানেজ করে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে নদীর গভীর থেকে প্রতিদিন অসংখ্য বালু উত্তোলন করছে। উপজেলার গাইবান্ধা ইউনিয়নের চন্দনপুর উত্তরপাড়া দশানী নদী থেকে জিয়াউল নামের এক সিন্টিকেট বালু ব্যবসায়ী র্দীঘদিন থেকে বালু ব্যবস্যা করে আসছে, সরজমিনে গেলে দেখা যায়, নদী ভাঙ্গন কবলিত এলাকা চন্দনপুরে ইতিপূর্বে প্রায় শতাধিক ঘরবাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে, এলাকা বাসী জানায় বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পর থেকে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তেলন করে নদীরপাড়ে বালু জমায়,আবার সেই বালু নিজের মাহিন্দ্রা গাড়ি দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করা হয়, গ্রামের কয়েকজন বলেন, বালু দস্যুরা এলাকার কিছু প্রভাবশালীদের হাত হাতরেখে প্রসাশনকে ম্যানেজ করে বালু উত্তেলন করছে, প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ তাদের বাধা দেয়ার সাহস করে না। এরা ড্রেজার মেশিন বসিয়ে নদীর গভীর থেকে বালু উত্তোলন করছে। গ্রামের প্রায় শত বসতবাড়ি ও আবাদি জমি ভাঙনের মুখে পড়েছে। বালু ব্যবসায়ী জিয়াউল নিজে প্রভাবশালী হওয়াই এলাকাবাসী কিছু বলতে সাহস পায় না।
ভুক্তভোগীরা জানান, ড্রেজিং পদ্ধতিতে বালু উত্তোলন করা হলে ভরা বর্ষায় তাদের বসত ভিটা ও ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলন হবে ফলে আমরা অসহায় হয়ে যাব। ইতির্পূবে অনেক বসতবাড়ি ও ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।
নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, ২০১০ সালে বালু উত্তোলন নীতিমালায় যন্ত্রচালিত মেশিন দ্বারা ড্রেজিং পদ্ধতিতে নদীর তলদেশ থেকে বালু উত্তোলন নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
এছাড়াও সেতু, কালভার্ট, রেললাইনসহ মূল্যবান স্থাপনার এক কিলোমিটারের মধ্যে বালু উত্তোলন করা বেআইনি। অথচ বালু দস্যুরা সরকারি ওই আইন অমান্য করে গাইবান্ধা ইউনিয়নের চন্দনপুর দশানি নদী থেকে বালি উত্তোলন করছে।
এ বিষয়ে ইসলামপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি মোঃ রোকনুজ্জামান খান (রোকন) বলেন, চন্দনপুরে অবৈধ বালু উত্তেলনের বিষয়টি জানতাম না, তবে আমরা খুব তারাতারি বালু উত্তোলনকারীদের মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহন করব।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 বিঃ দ্রঃঅপূর্ব নিউজ ২৪.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।Apurbanews24
Theme Customized BY WooHostBD